সহজে মেক-আপ সারতে চান? রইল এগারোটা টিপস

অনেকসময়ই প্রফেশনাল মেক আপ আর্টিস্ট না থাকায় ঠিক কীভাবে মেক আপ করা উচিত তা বুঝতে অসুবিধা হয়। কিছুসময় তো ওভার মেক আপও একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। দশটা আটটার ব্যস্তজীবনে মেক আপের পিছনে কতটাই বা সময় দেওয়া যায়? অথচ মেক আপ ছাড়া যেকোনও রকমের আউটিং অসম্ভব ব্যাপার। তাই আপনার জন্য নিচে রইল মেক আপের এগারোটি সহজ স্টেপস যার মাধ্যমে দশ মিনিটেই আপনার লুক হয়ে উঠবে পারফেক্ট।

১। মুখ পরিষ্কার করে নিন:

ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। তোয়ালে দিয়ে মুছে ভালো করে টোনার লাগিয়ে নিন। টোনারের পর ময়শ্চারাইজার লাগান সারামুখে।

২। ফাউন্ডেশন ও ফেসপাউডার লাগান:

ময়শ্চারাইজার লাগানোর দশ মিনিট পর হাতে এক ফোঁটা ফাউন্ডেশন নিয়ে গালের বিভিন্ন জায়গায় অল্প করে দিয়ে মেখে নিন। এতে গালের জেল্লা বাড়ে। এবার পাফ দিয়ে অল্প ফেসপাউডার আপনার সারা গালে বুলিয়ে নিন।

৩। কনসিলার ব্যবহার করুন :

আপনার চোখের নীচের অংশে যদি ডার্ক সার্কেল থাকে তবে তা ঢাকতে কনসিলার ব্যবহার করুন। আপনার স্কিন কালার অনুযায়ী বেছে নিতে পারেন পছন্দের টোন। কনসিলার তালুতে নিয়ে তার সঙ্গে হালকা ক্রিম মিশিয়ে ওই অংশে ব্যবহার করুন।

৪। নাকের দুপাশ ওয়াইপ করুন :

নাকের দুপাশ সাধারণত অয়েলি হয় , তাই এই দুই জায়গা পাফ করুন যাতে কোনও ধুলোবালি ওই অংশে না জমে।

৫। পছন্দের রঙের আইশ্যাডো লাগান:

এবারে বেছে নিন আপনার পছন্দের রঙের একটি আইশ্যাডো। ছাই রঙের আইশ্যাডো সবের সঙ্গেই যায়, তাই ব্যবহার করতে পারেন এই রঙও। চোখের উপরের অংশে এটি লাগান।

৬। এবারে তুলে নিন আইলাইনার:

আইশ্যাডোর পর এবারে আইলাইনার। চোখের পাতার উপর দিয়ে এটি লাগিয়ে নিন। চোখ দুমিনিট বন্ধ রেখে শুকিয়ে নিন আইলাইনার।

৭। এবারে মাস্কারা লাগান:

চোখের পাতাকে সুন্দর করে তুলতে এবারে পালা মাসকারা লাগাবার। চোখের উপর ও নীচ দুইদিকের পাতাতেই লাগিয়ে নিন মাস্কারা।

৮। কাজল লাগান পছন্দের রঙের:

এবারে বেছে নিন আপনার পছন্দের রঙের কাজল। এক্ষেত্রে ব্র্যান্ডেড কাজল যেমন ব্যবহার করতে পারেন, তেমনই ব্যবহার করতে পারেন ট্র্যাডিশনাল কাজলও। তবে ব্র্যান্ডেডটাই বেছে নিন। কারণ এটি গরমে ঘামের সঙ্গে উঠে আসে না। কাজলের পেনসিল দিয়ে চোখের তলায় কাজল পরে নিন।

৯। ভ্রু এঁকে নিন:

যাদের পাতলা ভ্রু, তারা ব্যবহার করতে পারেন আইব্রো পেন্সিল। এই পেন্সিল দিয়ে আপনার পাতলা ভ্রুটিকে এঁকে নিন সঠিকভাবে। আঁকার সময় খেয়াল রাখবেন যাতে ভ্রুর কার্ভ ঠিকঠাক থাকে।

১০। লিপস্টিক পরে নিন:

এবারে ঠোঁটের পালা। আপনার ঠোঁটকে সুন্দর দেখাতে পছন্দের লিপস্টিক ব্যবহার করুন। অনেকেই ঠিকঠাক লিপস্টিক আঁকতে পারেন না। তাঁরা আগে লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁটের চারপাশের বর্ডার এঁকে নিন। এরপর বর্ডারের মধ্যে পছন্দের রঙের লিপস্টিক পরে নিন। কোথায় যাচ্ছেন সেই জায়গা লিপস্টিকের রঙ বাছা ভালো।

১১। রুজ লাগান:

গালের জন্য মোটা ব্রাশ পাওয়া যায় তা নিয়ে রুজ পাউডার অ্যাপ্লাই করুন গালের দুপাশে। এক্ষেত্রে আপনার পছন্দের রঙ বাছতে পারেন। অফিসে যাওয়ার ক্ষেত্রে কোন রঙ ব্যবহার করবেন তা ঠিকমত বেছে নিন। গালের জলাইন ( jawline ) ও তার চারপাশে রুজ লাগান।