Home / জাতীয় / খালেদা জিয়ার সর্বশেষ অবস্থা সর্ম্পকে যা বললেন ফখরুল !  

খালেদা জিয়ার সর্বশেষ অবস্থা সর্ম্পকে যা বললেন ফখরুল !  

আমরা আশা করিনি আওয়ামী লীগের মতো একটি পুরোনো রাজনৈতিক দল আরেকটি রাজনৈতিক দলের নেতাকে এভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য হীন পন্থার আশ্রয় নিবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়া শুধু বিএনপির চেয়ারপারসন নন, তিনি ১৬ কোটি মানুষের নেতা, তার রাজনৈতিক জীবনটাই ছিল গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রামের জীবন। লড়াই করেছেন। উড়ে এসে জুড়ে বসেননি। এবং তিনি গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন।

তিনি আরও বলেন, তাকে এভাবে একটা মিথ্যা মামলায় অভিযুক্ত করে এবং এখন তার বিরুদ্ধে যে সব প্রচারণা করা হচ্ছে সরকারের পক্ষ থেকে, আমরা শুধু লজ্জিত হচ্ছি না দুঃখিত হচ্ছি না, বলা যেতে পারে এটাকে আমরা ধিক্কার জানাচ্ছি।

ঠিক এই মুহূর্তে চেয়ারপার্সনের কী পরিস্থিতি, এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, সবাই যা জানেন আমিও তাই জানি। পত্র পত্রিকায় যা দেখছি, খবর যা পেয়েছি, সেটা হচ্ছে উনাকে পুরোনো এবানডেন্ট সেন্ট্রাল জেলে সুপারের ঘরে রাখা হয়েছে। আর পরিবারের সদস্যরা দেখা করেছেন। তাদের সাথে আমার এখনো কথা হয়নি। আমি ঠিক জানি না।

খালেদা জিয়া শারিরিকভাবে অসুস্থ, তার খাবার ঔষুধপত্র সেসব নিয়ে কী পরিকল্পনা করছেন, জানতে চাইলে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, এসব নিয়ে আমি সুনির্দিষ্টভাবে কিছু বলতে পারবো না। তবে আমি আশা করছি এবং আমাদের প্রত্যাশা খালেদা জিয়া তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী, দুই বারের বিরোধী দলীয় নেত্রী, জনপ্রিয় রাজনৈতিক দলের নেতা, বৃহৎ রাজনৈতিক দলের চেয়ারপার্সন সুতরাং তার যেটা প্রাপ্য সেই অংশটাই পাওয়া উচিত।

তিনি আরও বলেন, আপনারা জানেন আমাদের দেশের আইন অনুযায়ী জামিন পেতে হাইকোর্টে যেতে হবে। সেই সঙ্গে তার (খালেদা জিয়ার) জামিন চাইতে হবে। যেহেতু কোর্ট শুক্রবার ও শনিবার বন্ধ, আমরা আশা করছি আগামী রোববার বা সোমবারের মধ্যে যদি কাগজপত্র পাওয়া যায় তাহলে এ ব্যাপারে আইনী প্রক্রিয়ার কাজ শুরু হবে। কিছুটা কাজ চলছে।

Check Also

প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে এমসিকিউ বাদ দেয়া হবে

প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে বহু নির্বাচনী প্রশ্ন (এমসিকিউ) তুলে দেয়ার কথা বলেছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কাজী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *