Home / জাতীয় / ম্যাডামের আরও বুঝেশুনে চলা উচিত ছিল

ম্যাডামের আরও বুঝেশুনে চলা উচিত ছিল

এতিমের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে জিয়া অরফানেজ দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আর তারেক জিয়াসহ ৪ জনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক আখতারুজ্জামান বৃহস্পতিবার দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন। এর পরপরই বেগম জিয়াকে কারাগারে নেওয়া হয়েছে। এই রায় নিয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন বিএনপি ঘনিষ্ঠ কয়েকজন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব।

গাজী মাজহারুল আনোয়ার

কিছু ব্যাপার আছে ম্যাডামের বুঝেশুনে চলা উচিত ছিল। আমরা সংস্কৃতিকর্মী। আমরা ম্যাডামের উপদেষ্টা নই। একটা দলকে ভালো লাগতেই পারে। মনে রাখতে হবে তার জন্য সবকিছু ভালো লাগবে না। যারা আসলে এখন বিএনপি চালাচ্ছে তারা আসলে ভালোবেসে বিএনপি চালাচ্ছে নাকি বাধ্য হয়ে চালাচ্ছে কিছু বুঝতেছি না। আমরা সেই জিয়ার আমল থেকে বিএনপি করি। এখান থেকে কিছু পাওয়ার আশায় নয়। ম্যাডামের আশপাশ থেকে যদি অচিরেই কিছু লোক না সরায়। তাহলে বিএনপি থেকে একটা বড় অংশ হঠাৎ করে সরে যাবে। আমি এখন বয়স্ক মানুষ। ডাকলে যাই সভায়। আর এই রায় নিয়ে বলতে বলা হলে বলবো সরকার এটা না করলেও পারতো। কিন্তু আইনের উপরে গিয়ে আমি কিছু বলবো না।

মনির খান

বিএনপির সাংস্কৃতিক সংগঠন জাসাসের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কণ্ঠশিল্পী

এই রায় রাজনৈতিক প্রতিহিংসার, এটা সবাই জানে। আমরা ধৈর্য্য ধরছি, ইনশাআল্লাহ সত্যের জয় একদিন হবেই। এটা রাজনৈতিকভাবে হেয় করা ছাড়া আর কিছুই নয়। ব্যক্তিগত ভাবে আমি ম্যাডাম ( খালেদা জিয়া) এর সঙ্গে ছিলাম, আছি ও আগামীতেও থাকবো।

[একাদশতম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মনির খান। তিনি ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর ও কোটচাঁদপুর উপজেলা (ঝিনাইদহ ৩ আসন) থেকে সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে গেল বছর থেকে প্রচারণা ও জনসংযোগ চালাচ্ছেন।] বেবি নাজনীন

বুধবার রাতে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে খালেদা জিয়াকে বিদায় দিতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন এই সঙ্গীত তারকা। বেবী নাজনীন বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে অনেক দিন ধরেই যুক্ত আছেন। ‘জাসাস’-এর সক্রিয় কর্মী তিনি।

আজ কথা বলতে গিয়েও তিনি আবেগ আপ্লুত হয়ে যান। থেমে থেমে বলেন,‘ এটা মেনে নেওয়া যায় না। তিনি আমার মায়ের মতো। আমি আমার মায়ের সঙ্গে দেখা করতে যাবো। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সিনিয়র নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে দেখা করতে যাবো।’

আপনার কী মনে হয় অনেকদিন জেলে থাকবেন? ‘কিচ্ছু জানি না আমি। আমি শুধু তাঁর সঙ্গে দেখা করতে চাই’। এটুকু বলে আর কথা বাড়ালেন না।

এ নিয়ে বিএনপি পন্থী হিসেবে পরিচিত আসিফ আকবর, ন্যানসিদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাঁরা কথা বলতে রাজি হননি। অপরদিকে হেলাল খান বলেছেন অসুস্থ। এই মুহুর্তে তাই তিনি এ নিয়ে কথা বলতে নারাজ।

Check Also

প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে এমসিকিউ বাদ দেয়া হবে

প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে বহু নির্বাচনী প্রশ্ন (এমসিকিউ) তুলে দেয়ার কথা বলেছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কাজী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *